খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল - ডায়াবেটিস কত হলে ঔষধ খেতে হবে

 

ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ হলো একটি দীর্ঘস্থায়ী বিপাকীয় ব্যাধি যা ইনসুলিন উৎপাদন করতে ব্যর্থ হয়। আপনারা অনেকেই জানতে চান যে খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল। আজকের এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল এবং সে সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের তথ্য সম্পর্কে।
রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ স্বাভাবিকের থেকে বেশি হলে আমাদের শরীরে ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ দেখা দেয়। ছোট বড় প্রত্যেকটি মানুষেরই এ রোগ হতে পারে। তাই খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল এবং এ সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের তথ্য নিচে আলোচনা করা হলো।

ভূমিকা:খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ হলো এমন একটি রোগ যেখানে এ রোগ নিয়ন্ত্রণে না থাকলে বিভিন্ন ধরনের জটিলতার সৃষ্টি হয়। এসব দীর্ঘমেয়াদী জটিলতার মধ্যে রয়েছে:হৃদরোগ,ডায়াবেটিস নেফ্রোপ্যাথি,ডায়াবেটিস জনিত পায়ের ক্ষত, স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক,চিন্তাশক্তির লোপ, ইত্যাদি। এ সকল অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে ডায়াবেটিস সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের তথ্য সম্পর্কে জানা প্রয়োজন। তাই আজকের আর্টিকেলে খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল এবং এ সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের তথ্য সম্পর্কে জানানো হবে।

খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

ডায়াবেটিস সনাক্তের জন্য নির্ভুল এবং বহুল ব্যবহৃত একটি নির্ভুল পদ্ধতি হলো ওরাল গ্লুকোজ টলারেন্স টেস্ট বা ওটিজি। এই পদ্ধতিতে ডায়াবেটিস সনাক্ত করার জন্য রোগীকে প্রথমে সকালে খালি পেটে একবার রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ পরীক্ষা করতে হয় তারপর ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ শরবত পানের দুই ঘন্টা পর আরেকবার রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ পরীক্ষা করতে হয়।

খালি পেটে রক্তে সুগারের পরিমাণ ৫.৫ এর আশেপাশে থাকলে নরমাল। এবং রক্তে এই সুগারের মাত্রা যদি ৫.৫ থেকে ৬.৯ এর মধ্যে থাকে তাহলে এ অবস্থাকে ফ্রি ডায়াবেটিস বা ডায়াবেটিস এর পূর্ব লক্ষণ বলা হয়। যদি এইমাত্রা ৭ পয়েন্ট এর উপরে চলে যায় তাহলে আমরা সেটাকে ডায়াবেটিস বলি।

ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যাদের মধ্যে ডায়াবেটিসের উপসর্গ সমূহ দেখা দিয়েছে অথবা ডায়াবেটিস রোগে ভুগছেন। তারা অনেকেই জানতে চান ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল। আজকে আমরা আপনাদের জানাবো ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল।
সাধারণত ভরা পেটে রক্তে সুগারের পরিমাণ সামান্য বেড়ে যাওয়াটা স্বাভাবিক কিন্তু এই সুগারের পরিমাণ যদি ৭.৮ এর বেশি হয়ে থাকে তাহলে এটাকে প্রি ডায়াবেটিস বা ডায়াবেটিস এর পূর্ব লক্ষণ বলা হয়ে থাকে। এবং এইমাত্র ১১.১১ এর চাইতে বেশি হলে তা ডায়াবেটিসের জন্য যথাপযোক্ত মাত্রা হিসেবে গণ্য করা হয়।
এবং আমেরিকান ডায়াবেটিক এসোসিয়েশনের মত অনুযায়ী HBA1C এর মান ৫.৬ এর কম হলে স্বাভাবিক এবং এর মান ৭.৫ এর বেশি হলে ডায়াবেটিস হিসাবে বিবেচিত হয়।

ডায়াবেটিস কত হলে ঔষধ খেতে হবে

ডায়াবেটিস সনাক্তের পর ডায়াবেটিস যদি নিয়ন্ত্রণে না থাকে, তাহলে তা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ঔষধ খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এতে বিভিন্ন ধরনে জটিলতার সৃষ্টি হয় এবং দ্রুত তা নিয়ন্ত্রণে না আনলে এর মাত্রা আরো বেড়ে যায়। এসব জটিলতার মধ্যে রয়েছে: কিডনি বা বৃক্ষের অক্ষমতা,অতিরিক্ত মেদ, দৃষ্টিবিচ্যুতি, দ্রুত ক্ষত না শুকানো বা অঙ্গচ্ছেদ ইত্যাদি।তাই বিভিন্ন ধরনের শারীরিক ঝুঁকি এড়াতে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আনা প্রয়োজন এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ওষুধ খাওয়া জরুরি।
ডায়াবেটিসের চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে:ইনসুলিন, অ্যান্টিবায়োটিক ঔষধ এবং জীবনধারার পরিবর্তন।

দ্রুত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করার উপায়

ডায়াবেটিস অত্যন্ত ভয়াবহ একটি রোগ যেটি আমাদের কিডনি, হাড়, চোখ ও লিভার এর মত বিভিন্ন অঙ্গে প্রভাব ফেলে।তাই বিভিন্ন ধরনের জটিলতা এড়াতে ডায়াবেটিসের লক্ষণ সমূহ সম্পর্কে জানা প্রয়োজন এবং দ্রুত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে আনা প্রয়োজন।
ডায়াবেটিস রোগের লক্ষণ সমূহ:
  • ঘনঘন প্রস্রাব হওয়া এবং পিপাসা লাগা
  • ক্ষুধা বেড়ে যাওয়া
  • মিষ্টি জাতীয় খাবারের প্রতি আকর্ষণ বেড়ে যাওয়া
  • বিরক্তি ও মেজাজ খিটখিটে লাগা
  • চোখে ঝাপসা বা কম দেখা
  • দুর্বল লাগা
  • স্বাভাবিকের তুলনায় চোখে কম দেখা এবং
  • কারণ ছাড়াই ওজন কমে যাওয়া ইত্যাদি
উপরোক্ত লক্ষণ সমূহ দেখা দিলে দ্রুত ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা প্রয়োজন এবং ডায়াবেটিস শনাক্ত হলে তা নিয়ন্ত্রণে আনা প্রয়োজন। নিচের দ্রুত ডায়াবেটিস
নিয়ন্ত্রণ করার উপায় তুলে ধরা হলো:
শারীরিক ব্যাযাম:আমাদের শরীর সুস্থ রাখতে এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য প্রতিদিন পরিমিত ব্যায়াম করা এবং অন্ততপক্ষে এক ঘন্টা হাটা প্রয়োজন।
ধূমপান ও মদ্যপান ছেড়ে দেওয়া:একজন স্বাভাবিক মানুষের জন্যও ধূমপান এবং মদ্যপান অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ধূমপান এবং মদ পান এর অভ্যাস পরিত্যাগ করা অত্যন্ত জরুরি।
খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন:দ্রুত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য আপনার খাদ্যাভাস পরিবর্তন করা প্রয়োজন। আমাদের প্রত্যেক দিনের খাবার তালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণে সুষম খাদ্য রাখতে হবে এবং মিষ্টি জাতীয় খাবার ও অতিরিক্ত তেল চর্বি জাতীয় খাবার পরিহার করতে হবে। মৌসুমী বিভিন্ন ধরনের ফল ও ভিটামিন জাতীয় পুষ্টিকর খাবার বেশি বেশি খেতে হবে। এবং পরিমিত পরিমাণের নিয়ম করে প্রতিদিন শাকসবজি খেতে হবে।
উপরিউক্ত অভ্যাসগুলো গড়ে তুলতে পারলে দ্রুত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

সুগার লেভেল কত হলে ডায়াবেটিস

গ্লুকোজ হলো কোষের প্রাথমিক শক্তির উৎস। আমরা অনেকেই জানতে চাই সুগার লেভেল কত হলে ডায়াবেটিস। আজকে আমরা আপনাদেরকে জানাবো সুগার লেভেল কত হলে ডায়াবেটিস। রক্তে শর্করার মাত্রা ১০০ এবং ১২৫ mg এর মধ্যে হলে এটি প্রি ডায়াবেটিস অবস্থান নির্দেশ করে যা চীনের স্বাভাবিক মাত্রা থেকে কিছুটা বেশি এবং দুইবার পরীক্ষার পর ১২৬ mg ভাতার বেশি হলে রক্তে শর্করার গ্লুকোজ বা ডায়াবেটিসের ইঙ্গিত দেয়।
নিপোর্ট এর একটি জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশে মোট ডায়াবেটিস আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা প্রায় ১ কোটি ১০ লাখ।

নবজাতকের ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

শুধুমাত্র বয়স্কদের না যে কোন বয়সের মানুষেরই ডায়াবেটিস হতে পারে। সাধারণত ছয় মাস বয়সের আগেই যে ডায়াবেটিস হয় তাকে নবজাতকের ডায়াবেটিস বলে। এক্ষেত্রে নবজাতকের রক্তে চিনির পরিমাণ বেশি থাকে, এবং এ রোগ হয় মূলত ইনসুলিনের অভাবে।
নবজাতকের ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল এ সম্পর্কিত সকল ধরনের তথ্য জেনে রাখা প্রয়োজন। শিশুদের স্বাভাবিক রক্তের শর্করার পরিমাণ ৯৯ mg/dl বা তার কম হয়ে থাকে এবং ডায়াবেটিস হলে রক্তে শর্করার পরিমাণ ১৪০ mg/dl বা তার বেশি হয়ে থাকে।কোনো নবজাতকের ডায়াবেটিস ধরা পড়লে দ্রুত তাকে চিকিৎসার আওতায় নিয়ে আসতে হবে এবং চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।

শেষ কথা:খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

আজকে আমরা ডায়াবেটিস সংক্রান্ত বিভিন্ন ধরনের তথ্য এবং খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলেনরমাল, ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল,ডায়াবেটিস কত হলে ওষুধ খেতে হবে,দ্রুত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করার উপায়,সুগার লেবেল কত হলে ডায়াবেটিস,গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিস কত হলে ইনসুলিন নিতে হয়, নবজাতকের ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল এ সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের তথ্য সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছি। আশা করছি,খালি পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল আর্টিকেলটি আপনাদের উপকারে আসবে।


পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url