বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয় - ওজন দিবস কবে উদযাপিত হয়

প্রিয় পাঠক আপনি যদি বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয় জানতে চান তবে এই পর্বটি আপনার জন্য। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন ওজন দিবস কবে পালন করা হয় সেই সম্পর্কে। বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালন করা হয় জানতে হলে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয়।

বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয়
আপনি নিশ্চয়ই বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালন করা হয় জানতে চাচ্ছেন? হ্যাঁ আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আমরা আলোচনা করব বিশ্ব ওজন দিবস সম্পর্কে। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয়।

বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয়

আপনি কি জানেন বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয়? যদি না জেনে থাকেন তবে এই পর্বটি আপনার জন্য। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আমরা আলোচনা করব বিশ্ব ওজন দিবস কত তারিখ পালিত হয় সেই সম্পর্কে। বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালন করা হয় জানতে হলে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয়।
আন্তর্জাতিক ওজন স্তর সুরক্ষা দিবস বা বিশ্ব ওজন দিবস প্রতিবছর ১৬ই সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিকভাবে পালন করা হয়। এই দিবসটি একটি সচেতন মূলক দিবস। ওজন স্তরের লক্ষ্যে ও এর ক্ষতিকারক প্রভাব সম্পর্কে বিশ্বব্যাপী গণসচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে বিশ্ব ওজন দিবস পালন করা হয়। প্রতিবছর ১৬ই সেপ্টেম্বর বিভিন্ন দেশে আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে এই  দিবস টি পালন করা হয়।

ওজন দিবস কবে উদযাপিত হয়

ওজন দিবস কবে উদযাপিত হয় জানতে হলে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কেননা আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আলোচনা করব ওজন দিবস কবে বা কত তারিখে উদযাপিত হয় সেই সম্পর্কে। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক ওজন দিবস কবে উদযাপিত হয়। ১৬ই সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিবছর বিভিন্ন দেশ ওজন দিবস উদযাপন করে থাকে। 

প্রতিবছর এই দিনে বিভিন্ন অনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে অনেক দেশ গণসচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে এই দিবসটি উদযাপন করে থাকে। এই দিবসটি একটি সচেতন মূলক দিবস। ওজন স্তরের লক্ষ্যে ও এর ক্ষতিকারক প্রভাব সম্পর্কে বিশ্বব্যাপী গণসচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে বিশ্ব ওজন দিবস পালন করা হয়। ১৯৯৫ সাল থেকে প্রতিবছরে ১৬ই সেপ্টেম্বর বিশ্ব ওজন দিবস উদযাপন করা হয়।

ওজন স্তর ক্ষয়ের জন্য দায়ী কোন গ্যাস

আপনি কি জানেন ওজন স্তর ক্ষয়ের জন্য দায়ী কোন গ্যাস? যদি না জেনে থাকেন তবে আজকের এই পর্বটি আপনার জন্য। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আলোচনা করব ওজোন স্তর ক্ষয়ের জন্য কোন দেশ দায়ী সেই সম্পর্কে। ওজন স্তর ক্ষয়ে কোন দেশ দায়ী জানতে হলে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক ওজন স্তর ক্ষয়ের জন্য দায়ী কোন গ্যাস।
১৯৮৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানী সুজান সলোমন গবেষণা করে দেখে ওজোন স্তর ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। আর এর কারণ হচ্ছে ক্লোরিন এবং ব্রোমিন আছে এমন ধরনের অনুর উপস্থিতির কারণে। ক্লোরিন এবং ব্রোমিন থাকে ক্লোরোফ্লোরো কার্বন গ্যাস গুলোতে যেগুলোকে সংক্ষেপে বলে সিএফসি। আরে গ্যাস গুলো উপস্থিত থাকে হেয়ার স্প্রে থেকে শুরু করে রেফ্রিজারেটর ও এয়ারকন্ডিশনিং যন্ত্র গুলোতে।

ওজন স্তরের সুরক্ষা ও সংরক্ষণের জন্য নিচের কোন সনদ স্বাক্ষরিত হয়

আপনি কি জানেন ওজন স্তরের সুরক্ষা ও সংরক্ষণের জন্য নিচের কোন সনদ স্বাক্ষরিত হয়। যদি না জেনে থাকেন তবে এই পর্বটি আপনার জন্য। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আমরা আলোচনা করব ওজন স্তরের সুরক্ষা এবং সংরক্ষণের জন্য কোন সনদ স্বাক্ষরিত হয়েছিল সেই সম্পর্কে। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক ওজন স্তরের সুরক্ষা ও সংরক্ষণের জন্য নিচের কোন সনদ স্বাক্ষরিত হয়।
  1. ভিয়েনা কনভেনশন
  2. কার্টাগেনা প্রটোকল
  3. কিয়োটা প্রটোকল
  4. বাসেল কনভেনশন
সঠিক উত্তর হল ১ নাম্বার অর্থাৎ ভিয়েনা কনভেনশন।

ওজন স্তর ক্ষয়ের কারণ কি

ওজন স্তর ক্ষয়ের কারণ কি জানতে হলে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন ওজোন স্তরের ক্ষয়ের মূল কারণ সম্পর্কে। ওজন স্তরের ক্ষয়ের কারণ অথবা কি কারণে ওজন স্তর ক্ষয় হয় জানতে হলে এই পর্বটি সম্পূর্ণ পড়ুন। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক ওজন স্তর ক্ষয়ের কারণ কি। 

বায়ুমন্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের আদিক্ক্য হলে ওজোন স্তর পর্যন্ত পৌঁছায় ও কার্বন ডাই-অক্সাইড এবং ওজন গ্যাসের বিক্রিয়া ঘটে। যার কারণে ওজনের অণু ভেঙে কার্বন ডাই-অক্সাইড এর সাথে যুক্ত হয়ে বিষাক্ত কার্বন মন অক্সাইড উৎপন্ন করে থাকে। যার কারণে ওজন স্তর ধীরে ধীরে ধ্বংস হয়ে যায়।

ওজন স্তরের গুরুত্ব

আপনি কি ওজন স্তরের গুরুত্ব সম্পর্কে জানেন? যদি না জেনে থাকেন তবে এই পর্বটি আপনার জন্য। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আমরা আলোচনা করব ওজন স্তরের কতটুকু গুরুত্ব রয়েছে সেই সম্পর্কে। ওজন স্তরের কতটুকু গুরুত্ব জানতে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক ওজন স্তরের গুরুত্ব। ওজন স্তরে ওজনের ঘনত্ব কম হলেও জীবনের জন্য এর গুরুত্ব অনেক। 

 সূর্য থেকে আগত ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশনে শোষণ করে নেয়। ওজন স্তর সূর্যের ক্ষতিকারক মাধ্যম। মাতার তরঙ্গ দৈর্ঘ্য শতকরা ৯৭ থেকে ৯৯ অংশ শোষণ করে নেয়। যা ভূপৃষ্ঠ অবস্থানরত উদ্ভাসিত জীবন সমূহের সমূহ ক্ষতিসাধন করতে সক্ষম হয়। মধ্যম তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সূর্যের এই অতিবেগুনি রশ্নি মানব দেহের ত্বক ও হাড়ের ক্যান্সার সহ অন্যান্য মারাত্মক ব্যাধি সৃষ্টিতে সমর্থ। তাই ওজোন স্তরের গুরুত্ব অপরিসীম।

বায়ুমন্ডলে ওজন স্তরের অবস্থান

আপনি যদি বায়ুমন্ডলে ওজন স্তরের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চান তবে এই পর্বটি আপনার জন্য। আজকের এই পর্বের মাধ্যমে আমরা আলোচনা করব বায়ুমণ্ডলের ওজন স্তরের অবস্থান সম্পর্কে। বায়ুমন্ডলে ওজন স্তর এর অবস্থান সম্পর্কে জানতে এই পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। 

তাহলে চলুন আজকের এই পর্বের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক বায়ুমন্ডলে ওজন স্তরের অবস্থান সম্পর্কে বিস্তারিত। ওজন স্তর পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে একটি স্তর যা তুলনামূলকভাবে বেশি মাত্রায় ওজোন গ্যাস থাকে। এই স্তরে প্রধানত স্ট্যাটস্ফিয়ারের নিচের অংশে, যা ভূপৃষ্ঠ থেকে আনুমানিক ২০ থেকে ৩০ কিলোমিটার উপরে অবস্থিত।

শেষ কথা

উপরোক্ত আলোচনা সাপেক্ষে এতক্ষণে নিশ্চয়ই বিশ্ব ওজন দিবস কবে পালিত হয় জানতে পেরেছেন। আপনার যদি এই পর্বটি সম্পর্কে কোন মতামত থেকে থাকে তবে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং আজকের পর্বটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তবে অবশ্যই বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন।
পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url