মুখের দাগ দূর করার সহজ নিয়ম - মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার ক্রিম

 বর্তমান সময়ে মুখে কালো দাগ হয়ে গেছে একটু বড় সমস্যা। আগে শুধুমাত্র মেয়েদের মধ্যেই এই ব্রণে প্রবণতা বেশি দেখা যেত। কিন্তু বর্তমানে ছেলেদের মধ্যেও ব্রণের সমস্যা দেখা দিচ্ছে । আর সাধারণত প্রাকৃতিকভাবেই বয়সন্ধিকালে ব্রনের সমস্যা বেশি হয়ে থাকে।আর ব্রণ থেকে আসে কালো দাগগুলো অনেকদিন পর্যন্ত থেকে যায়।

 আজকে আমরা জানবো মুখে কালো দাগ গুলো দূর করার উপায়। শুধুমাত্র ঘরোয়া উপায় নয় বরং কোন ফেস ওয়াশ ব্যবহার করলে মুখের কালো দাগ দূর হয়ে যেতে পারে তাও আজকে আমরা জানতে পারবো। 

মুখে কালো দাগের কারনঃ

মুখের কালো দাগ এখন একটি বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই সমস্যা বেশি ভাগ মেয়েদের মধ্যে দেখা যায়। আমাদের মুখে প্রাকৃতিক ভাবে ব্রণ হয় আবার কিছু ব্যাকটেরিয়ার কারণেও ব্রণ হয়ে থাকে। কিন্তু ব্রণ হওয়ার পরে যদি এগুলোতে হাত দিয়ে বা খোটানোর জন্য  সেটি কালো দাগে পড়ানো তো হয়। শুধু যে হাত দিলেই কালো থাকে পরিনত হয় তা নয় এমন কিছু কিছু ব্রণ রয়েছে যা হাত না দিলেও কালো দাগে পড়লে তো হয়। 

আবার প্রাকৃতিক কিছু কারণ ছাড়া। নিজেদের ভুলের কারণেও  মুখের কালো দাগে সৃষ্টি হতে পারে। অনেকে আছে যারা রাত জেগে পড়াশোনা করে কিংবা রাত জেগে কাজ করে। রাত জাগার জন্য চোখের নিচে কালো দাগের পাশাপাশি মুখের ব্রণের সংখ্যা বেড়ে যেতে পারে। তাই মুখের কালো দাগ দূর করতে হলে রাত জাগার বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। 

এছাড়া মুখে ব্রণ হওয়ার একটি বড় কারণ হলো ময়লা থাকা বা ময়লা হাত দিয়ে মুখ স্পর্শ করা। মুখ ময়লা থাকার কারণে মুখের ব্রণের সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর সে ব্রণ থেকে মুখে কালো দাগের সমস্যা হয়। তাই চেষ্টা করবেন সবসময় মুখ পরিষ্কার রাখার। 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা মুখ পরিষ্কার রাখে না কিংবা দিনে একবার অন্তর মুখ পরিষ্কার করে। তাদের মুখের সমস্যা দূর করতে হলে কিন্তু সব সময় মুখ পরিষ্কার রাখতে হবে। 

ছেলেদের মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়ঃ

মুখের ব্রণ হওয়ার একটা অন্যতম কারণ হলো মেলানিন।শুধু আমাদের মুখের ব্রণের সমস্যা সৃষ্টি করে তা কিন্তু নয় ।  আমাদের মুখের ও চুলের রং ঠিক রাখার জন্য কাজ করে। যখন  মেলানিন এর মাত্রা অনেক বেড়ে যায় তখন মুখে ব্রণের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। ব্রণের পাশাপাশি মুখে কালো দাগেরও সমস্যা দেখা দেয। 

আপনারা হয়তো দেখে থাকবেন যে বয়স্কদের হাতে কিংবা মুখে ছোট ছোট কালো দাগ রয়েছে। তাদের এই কালো দাগের কারণ হলো তো মেলানিন। 

শুধু যে এই কারণে মুখে কালো দাগের সৃষ্টি হয় তা কিন্তু নয়। না জেনে শুনে ভুল কোন ক্রিম মুখে ব্যবহার করলেও মুখে কালো দাগের মতো সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে।

 মুখের দাগ দূর করার সহজ নিয়ম

একটি বাটিতে তিন চামচ বেসন, এক চামচ মধু বেকিং সোডা ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে এতে পানি যোগ করতে হবে। এটি কিছুদিন মুখে ব্যবহার করার ফলে মুখের কালো দাগ গুলো দূর করতে সাহায্য করবে। 

মুখের দাগ দূর করার জন্য নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১।মুখে দিনে তিনবার ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।

ছেলেদের মুখে তিনবার ফেসওয়াস ব্যবহার করা দরকার, কারণ তারা  বাইরে থাকে। তাই তাদের মুখে ময়লার পরিমাণ বেশি হয়। তাই তাদের দিনে তিনবার ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে হবে। 

২।মুখে ময়লা হাত দেওয়া যাবে না 

মুখে ময়লা হাত দেওয়ার ফলে ও হাতের কিছু ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া  মুখে ব্রণের সৃষ্টি করতে পারে । তাই ময়লা হাতে মুখে হাত দেওয়া উচিত নয়। 

মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়ঃ

সচরাচর ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের মুখের ব্রণের সমস্যা একটু বেশি হয়ে থাকে। এবং তারাও এই সমস্যা নিয়ে অনেক চিন্তায় থাকেন। তারা চাইলেও ফেসওয়াশের পাশাপাশি ঘরোয়া উপায়ে মুখের কালো দাগ দূর করতে পারেন। 

১।মসুরের ডালের সঙ্গে দুধ দিয়ে বেটে মুখে লাগালে মুখের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। 

২।আরো আমাদের ত্বকের কালো দাগ দূর করতে অনেক সাহায্য করে। তাই আলু গ্রেট করে মুখে লাগিয়ে রাখলেও মুখের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও আলু গ্রেট থেকে পাওয়া রস দিও মুখের কালো দাগ দূর করা যেতে পারে। 

৩।লেবু আমাদের মুখের কালো দাগ দূর করতে অনেক সাহায্য করে। শুধুমাত্র মুখের কালো দাগ নয় এ ছাড়া অন্যান্য কালো দাগ দূর করতেও সাহায্য করে। যেমন ঘাড়ের কালো দাগ বা পোড়ার দাগ। এসব দূর করতে লেবু আমাদের অনেক সাহায্য করে। 

তাই লেবুর রসের সাথে এক চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে কালো জায়গায় ব্যবহার করলে  কালো দাগ গুলো দূর করতে সাহায্য করে। 

৪।কলার খোসা মুখের কালো দাগ দূর করতে অনেক সাহায্য করে। তাই আপনারা চাইলে কলা খাওয়ার পর কলার খোসা না ফেলে দিয়ে এটি আপনাদের রূপচর্চায় ব্যবহার করতে পারেন।কলার খোসা মুখে ভালো করে ঘষে নিতে হবে। এরপর কিছুক্ষণ রেখে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে নিয়মিত ব্যবহার করলে মুখে কালো দাগ দূর হয়ে যাবে। কারণ এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন অ্যান্টি-অক্সাইড আয়রন।

মুখের কালো দাগ দূর করার ক্রিমঃ

ঘরোয়া পদ্ধতির পাশাপাশি কিছু ক্রিমের মাধ্যমে মুখের কালো দাগ দূর করা যেতে পারে। 

ছেলেদের যে ক্রিম ব্যবহার করা উচিতঃ

মুখের কালো দাগ দূর করতে ছেলেদের মুখ সবসময় পরিষ্কার রাখতে হবে। তারা বিভিন্ন ধরনের ফেসওয়াস ব্যবহারে মুখের কালো দাগ দূর করতে পারে। 

নিচে ফেসওয়াস গুলোর নাম দেওয়া হলঃ

১।Acne aid ban shope(ব্রণ সাহায্য বার সাবান)

২। The body shope tea tree(শরীরের দোকান চায়ের গাছ)

৩।Neutrogen main skin cearring acne wash (নিউট্রোজেনা মেন স্কিন ক্লিয়ারিং অ্যাকনি ওয়াশ)

৪।L'Oréal men expert hydra energetic(L'Oréal পুরুষ বিশেষজ্ঞ হাইড্রা অনলস)

এই ফেসওয়াস গুলোর ব্যবহারে মুখের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি ব্রণ বেশি হওয়ার সমস্যা দূর করে দেয়। মুখ সবসময় পরিষ্কার রাখে। 

ফেসওয়াসগুলো ব্যবহার করার পরও যদি মুখের দাগগুলো না যায় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া দরকার। 

এছাড়াও এ ফেসওয়াশগুলো ব্যবহার করার পর আপনি বাড়িতে যেসব ক্রিম ব্যবহার করা সেইসব ক্রিম ব্যবহার  করতে পারবেন। 

মেয়েদের যে ক্রিম ব্যবহার করা উচিতঃ

মেয়েদের মুখের কালো দাগ ও ব্রণের সমস্যা দূর করতে সবচেয়ে ভালো ফেসওয়াস হলঃHimalaya neem face wash। সবচেয়ে বেশি ভালো মেয়েদের ক্ষেত্রে। এটি মুখের ব্রণ দূর করতে খুব দ্রুত কাজ করে। এবং মুখের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে।  এছাড়াও সবার মুখে সব ধরনের ফেসওয়াশ শুট নাও করতে পারে। তাই আপনার ত্বক অনুযায়ী আপনাকে ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে হবে। আর এজন্য আপনাকে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।


মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার ক্রিম

প্রিয় পাঠক আপনি জানতে চেয়েছেন মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার ক্রিম সম্পর্কে। আপনি যদি না জেনে থাকেন মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার ক্রিম কি তাহলে আজকের পর্বটি মিস করবেন না। জানতে হলে পুরো পর্বটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। মেয়েদের মুখের কালো দাগ দূর করার সবচাইতে ব্রেস্ট এবং কার্যকরী ক্রিম হচ্ছে বেটনোভেট এন ক্রিম। এই ক্রিমটি আপনি যেকোন ফার্মেসির দোকানে পাবেন।

শেষ কথা

প্রিয় পাঠক আজকে আমরা এই আর্টিকেলের শেষ প্রান্তে চলে এসেছি আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনি খুব মনোযোগ সহকারে পড়েছেন। আজকের আর্টিকেল সম্পর্কে আপনার যদি কোন মতামত থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url