মোবাইল ঘড়ি - এন্ড্রয়েড ঘড়ি মোবাইল

আজকের দিনে যদি আমাদের কাছে ঘড়ি না থাকতো, তাহলে এই আধুনিক যুগে আমাদের জীবন সহজ হতো না। কারণ বর্তমানে প্রায় সব আধুনিক যন্ত্রই ঘড়ির কাটার সাথে চলে। যে কোন ধরনের যানবাহন ও আধুনিক কাটার সঙ্গেই চলে। যেমনঃ ট্রেন, বাস, প্লেন ইত্যাদি আরো অনেক যানবাহন। এছাড়াও এই আধুনিক যুগের সব ধরনের কার্যক্রম সময়ের সঙ্গে চলছে। 

তাই ঘড়ি ছাড়া আমাদের জীবন অসম্পূর্ণ।তেমনি হল ঘড়ি ধীরে ধীরে এই ঘড়ি আজ ডিজিটাল রূপ ধারণ করেছে। এই ডিজিটাল ঘড়িতে স্মার্টফোনের যাবতীয় সুবিধা পাওয়া যায়। এই স্মার্টফোনের সুবিধা পাওয়ার জন্য বর্তমানে স্মার্ট ঘড়ি অনেক জনপ্রিয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ভূমিকা

ঘড়ি এমন একটি জিনিস যা সময় নির্ধারণ করতে সাহায্য করে। সে সঙ্গে এটি সময়ে অপচয়ও রোধ করে। বর্তমানে আধুনিক যন্ত্রের কারণে বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল যন্ত্র আবিষ্কার হয়েছে। প্রথম দিকে যখন কম্পিউটার আবিষ্কার হয় তখন কম্পিউটারের জন্য একটি পুরো ঘর লেগে যেত। এরপর ধীরে ধীরে ছোট হতে থাকে। এভাবে ছোট হতে হতে এসেছে বর্তমানের স্মার্টফন। যা আমরা পকেটে নিয়ে ঘুরতে পারি। এর জন্য বড় কোনো অতিরিক্ত ঘড়ির প্রয়োজন হয় না।

স্মার্টফোনের উৎপত্তিঃ

আগে সময়কে বোঝার জন্য বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করা হতো। প্রথমদিকে সূর্যের মাধ্যমে সময় বোঝা যেত। এরপর যখন বৃষ্টি পড়ে কিংবা মেঘ থাকে তখন আর সময় বোঝা যেত না। তাই এরপর পানির মাধ্যমে সময় নির্ধারণ করা হতো। এভাবে ধীরে ধীরে সময় নির্ধারণ করার জন্য বিভিন্ন মাধ্যম তৈরি করা হয়। এভাবে ধীরে ধীরে বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করার মাধ্যমে আজকের ঘড়ির আবিষ্কার হয়েছে। 

প্রথমদিকে এই ঘড়িটিকে হাতে পরা হত না। এটিকে সাধারণত পকেটে রাখা হতো।  পকেট থেকে বারবার বের করা একটু কষ্টকর। তাই ঘড়িকে হাতে পড়া শুরু হয়। এভাবে ধীরে ধীরে হাত ধরে প্রচলন শুরু হয়। হাতঘড়ির সবচেয়ে আধুনিক রুপ হলো স্মার্ট ওয়াচ। প্রথম প্রথম এই স্মার্টওয়াচেন ক্যালেন্ডার কিংবা ক্যালকুলেটর ব্যবহারের সুবিধা ছিল। এরপর ধীরে ধীরে স্মার্ট পোচের সাহায্যে কথা বলাও যায়।

২০১০ সালে প্রথম স্মার্টওয়াচ বের হয়।এভাবেই ঘড়ির বিভিন্ন কোম্পানিগুলো একে অপর সাথে প্রতিযোগিতা লেগে আজকের স্মার্টওয়াচ তৈরি করে। আজকের স্মার্টওয়াচ মূলত স্মার্টফোনের সব ধরনের সুবিধা পাওয়া যায়। আর স্মার্টফোনের বিভিন্ন ধরনের সুবিধা পাওয়ার জন্যই এটি অনেক জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এভাবেই মূলত স্মার্ট ওয়াচের উৎপত্তি হয়েছিল।

স্মার্টওয়াচের সুবিধাঃ

সময় দেখার জন্য অ্যানালগ ঘরে চল প্রায় উঠে গেছে বললে চলে। বর্তমান সময়ে এনালগ ঘরের জায়গা এই স্মার্টওয়াচ নিয়ে নিয়েছে। স্মার্টওয়াচের বর্তমানে অনেক জনপ্রিয়তা রয়েছে। এই জনপ্রিয়তার মূল কারণ হলো, এতে স্মার্টফোনের যাবতীয় সুবিধা পাওয়া যায়। এমনকি মাঝে মাঝে স্মার্টফোনের থেকে বেশি সুবিধা এই স্মার্ট ওয়াচ থেকে পাওয়া যায়।

অনেকেই মনে করে থাকেন যে, স্মার্ট ওয়াচ কেনা মানে অপচয়। এ দিয়ে কোন কাজ হয় না। আসলে কিন্তু তা নয়। আধুনিক যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের চলতে হয়। তাই এই আধুনিক যন্ত্র গুলোর সম্পর্কে আমাদের জানা উচিত। যেন আমরা আধুনিক যন্ত্র গুলোর উপকারিতা পেতে পা্রি। তাই স্মার্টওয়াচের সুবিধা সম্পর্কেও আমাদের জানা প্রয়োজন।

কিছু সুবিধা দেওয়া হলোঃ

  • এতে অ্যালার্মের সুবিধা রয়েছে। যা বিভিন্ন কাজের সময় মনে করিয়ে দিতে সাহায্য করে।
  • স্মার্টফোনে জিপিএস এরও সুবিধা রয়েছে।
  • জিপিএস এর পাশাপাশি ভয়েস কমান্ডার রয়েছে। যার মাধ্যমে আপনাকে কোন দিকে যেতে হবে সেটি বলে দেয়। ফলে বারবার আপনাকে ঘড়ির দিকে তাকাতে হবে না
  • এটি মোবাইলের সাথে কানেক্ট করা যায়। ফলে মোবাইল যদি হারিয়ে যায় তাহলে খুব সহজে মোবাইল খুজে বের করা যাবে।
  • এটি হেলথ ট্রাকার হিসেবেও অনেক ভালো কাজ করে। এটি আপনার প্রতিটা হাটার স্টেপ, আপনার পালস, হার্টবিট গণনা করতে পারে। আপনার হার্টবিট কিংবা পালস স্বাভাবিক আছে কিনা তাও জানা যায়।
  • এটির মাধ্যমে কল রিসিভ কিংবা মেসেজের রিপ্লাইও দেওয়া যায়। আপনার ফোনে কোথাও থেকে কল এলে আপনি এই ঘড়ির মাধ্যমে রিসিভ করতে পারবেন।  মেসেজগুলোও দেখতে পারবেন
  • এটিতে অনেকক্ষণ চার্জ থাকে। ফলে আপনি কোন লম্বা সফরে গেলেও এটি খুব সহজে ব্যবহার করতে পারবেন।
  • স্মার্টওয়াচ এ ডিফানের সুবিধার মধ্যে রয়েছে ওয়াটার প্রুফ এর সুবিধা।
  • এটিতে যেকোনো ধরনের ভিডিও প্লে কিংবা মিউজিক প্লে করা যাবে।
  • স্মার্টফোনের বিভিন্ন ধরনের নোটিফিকেশন এই ঘড়ির মাধ্যমে দেখা যাবে।

স্মার্টওয়াচের দামঃ

এতক্ষণ আমরা জানলাম স্মার্টওয়াচের সুবিধা সম্পর্কে। এর সুবিধার পাশাপাশি এর দামও জানা প্রয়োজন। এর বিভিন্ন মডেল অনুসারে এর দাম ভিন্ন হয়ে থাকে। তাই নিচে কিছু মডেল অনুসারে এর দাম গুলো দিয়ে দেয়া হলো।

T500

এই মডেলের ঘড়ি ব্লুটুথ কিংবা এপসের মাধ্যমে ফোনের সাথে কানেক্ট করা যায়। এতে কথা বলার সুবিধা রয়েছে। এর দাম মাত্র ১০০০ টাকা।

T55

এই মডেলের ঘড়ির সাথে দুইটি বেল্ট ফ্রী পাওয়া যায়। দুইটি বেল্ট ফ্রী পাওয়ার জন্য আগে এটা থেকে এটার দাম একটু বেশি। এটার দাম হলো,১১০০ টাকা।

W26 Promax

এটার সাথেও দুইটা বেল্ট থাকবে। দুইটা বেল্টের পাশাপাশি ব্লুটুথ ইয়ারফোন থাকবে। এটাতে ব্লুটুথ ইয়ারফোন থাকায় এর দাম হল,১৫০০ টাকা।

Microwere oox

এই ঘড়ির সাথে ওয়ারলেস চার্জা আছে। এটির চার্জ ফুরিয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে চার্জ করে নেওয়া যাবে। এটিতে ওয়্যারলেস চার্জারের সুবিধা থাকার জন্য এর দাম হল,১৮০০ টাকা।

 HW22

এটি ওয়াটার ু প্রুফ। এটি ফুল স্ক্রিন ঘড়ি। সেই সঙ্গে এটা ওয়ারলেস চার্জারে রয়েছে। আর এর দাম মাত্র ২০০০ টাকা। ওয়াটার প্রুফ ধরে নিতে গেলে মনে রাখতে হবে, সেখানে কিন্তু কল করার সুবিধা থাকবে না।

K10

অনেকেই সিম সিস্টেম ঘড়ি ব্যবহার করতে চাই। এটি তেমন এক ধরনের ঘড়ি। তে সিম এবং মেমোরি দুটি ব্যবহার করা যায়। এর দাম হল.১৪০০ টাকা। এটি ফোনের সাথে কানেক্ট করা ব্যবহার করা যাবে। এটি দুই ভাবে চালানো যায়।

I 37 promax

অনেকে অ্যাপেলের লোগো দেওয়া ঘড়ি পছন্দ করেন। এটিও তেমন ধরনের। এটি অন্ত অফ করলে এপেলের লোগো দেখা যাবে। এর দাম মাত্র ২০০০ টাকা।

Watch7

এটিও অ্যাপেলের লোগোর একটি ঘড়ি। এটিতে ফোনের সব ধরনের সুবিধা পাওয়া যাবে। এটির দাম হল ২৩০০ টাকা।

WS57

এটিতে কলিং ফিচার সুবিধা রয়েছে। এর দাম মাত্র ২০০০ টাকা।


মোবাইল ঘড়ি দাম কত ২০২৪

প্রিয় পাঠক আপনি জানতে চেয়েছেন মোবাইল ঘড়ি ২০২৪ এর দাম কত। জানতে হলে আজকের এই পর্বটি খুব মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে আপনি জানতে পারবেন মোবাইল ঘড়ি .২০২৪ এর দাম। তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেই।

WS57-এই ঘড়ির বর্তমান দাম ২০০০ টাকা।

Watch7-এই ঘড়িটি অ্যাপেলের লোগো একটি ঘড়ি, এটির বর্তমান দাম হচ্ছে ২৩০০ টাকা।

I 37 promax-এই ঘরের বর্তমান বাজার মূল্য দুই হাজার টাকা।

 HW22-এই স্মার্ট ঘড়ির বর্তমান বাজার মূল্য দুই হাজার টাকা।

K10-এই হরি বর্তমান বাজার মূল্য ১৪০০ টাকা।

প্রিয় পাঠক এই পর্বে আমরা মোট পাঁচটি মোবাইল ঘড়ির দাম তুলে ধরেছি। আপনি যদি আরও ভরি সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আপনি এই পর্বটি খুব মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

শেষ কথা

প্রিয় পাঠক আশা করছি আপনারা সবাই ভাল আছেন। আজকে আমরা মোবাইল এবং মোবাইল সম্পর্কে জানব। আজকের পর্বটি যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি আপনার বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেনা।

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url