দাঁতের স্কেলিং খরচ কত - দাঁত স্কেলিং কেন প্রয়োজন

আসসালামু আলাইকুম, দৈনন্দিন জীবনে আমরা দাঁত দিয়ে অনেক কিছু চিবিয়ে থাকি। আর এই চিবানোর ফলে দাঁতে অনেক ময়লা জমে। এর জন্য আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে দাঁতের স্পেলিং খরচ কত এবং দাঁত স্কেলিং কেন প্রয়োজন তার বিস্তারিত জানাবো। দাঁত পরিষ্কার রাখার জন্য দাঁতের স্কেলিং খরচ কত তা জেনে রাখা প্রয়োজন।

দাঁতের স্কেলিং খরচ কত
দাঁত পরিষ্কার না থাকার কারণে আমরা দাঁতের ভিন্ন ধরনের অসুখের সম্মুখীন হয়। এর জন্য চলুন জেনে নেই দাঁত পরিষ্কার রাখার জন্য দাঁতের স্কেলিং খরচ কত।

দাঁত স্কেলিং কেন প্রয়োজন

স্কেলিং হল এক ধরনের বিশেষ দাঁত পরিষ্কার পদ্ধতি। স্কেলিং এর মাধ্যমে দাঁতের গোড়ায় জমে থাকা অনেক দিনের ময়লা, প্লাক ক্যালকুলাস বা দাঁতের চারপাশে জমে থাকা পাথর এক বিশেষ ধরনের যন্ত্রের মাধ্যমে পরিষ্কার করা হয়। আমরা এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের দাঁতের স্কেলিং খরচ কত এবং দাঁতের স্কেলিং কেন প্রয়োজন তা বিস্তারিত জানাবো। নিম্নে দাঁতের স্কেলিং প্রয়োজন কেন তা দেওয়া হলঃ
আমরা দৈনন্দিন জীবনে দাঁত দিয়ে অনেক খাবার খেয়ে থাকি যার ফলে প্রতিদিনের খাবারের জন্য বিভিন্ন ধরনের জীবাণু বা খাবার জমা হয়।

আরো পড়ুনঃদাঁত শিরশির করা থেকে মুক্তির উপায় জেনে নিন

এই খাবারগুলো যদি দীর্ঘদিন পর্যন্ত জমে থাকে এবং সেগুলো যদি পরিষ্কার না করা হয় তাহলে আমাদের দাঁতের গড়াই খাদ্য গুলো আবরণ অবস্থায় পেরিওডেন্টাল মেমব্রেনের ওপর শক্ত হয়ে জমাট বেঁধে থাকে। এইভাবে জমাট বেঁধে বেঁধে একসময় সেই খাদ্যগুলো পাথরের ন্যায় পরিবর্তন হয়ে যায়। এই অবস্থা কে ডেন্টাল সায়েন্স ক্যালকুলাস বলা হয়। এধরনের আবরণীয় পাথরগুলো দীর্ঘদিন পর্যন্ত জমাট বেঁধে থাকলে তা সর্বশেষে দাঁতের মেমব্রেনকে নষ্ট করে দেয়।

এর ফলে দাঁতের এবং মাড়ীর বিভিন্ন ধরনের রোগ সৃষ্টি হয় যেমন: জিনজিভাইটিস, মুখের ভেতরে দুর্গন্ধ, মাড়ি থেকে রক্তপাত হওয়া, দাঁত শির শির ইত্যাদি সহ নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এ ধরনের জমে থাকা দীর্ঘ দিনের প্লাক ক্যালকুলাস যদি পরিষ্কার না করা হয় তাহলে সমস্ত দাঁতে ক্যারিজ হয়ে যায়। এর জন্য এই জমে থাকা পাথরগুলো রিমুভ করার জন্য প্রতি ছয় মাস পর পর যেকোনো ডেন্টাল কেয়ার এ গিয়ে পরামর্শ অনুযায়ী পরিষ্কার করানো উচিত।

ডেন্টিস এর কাছে গেলে ডাক্তার বলে দেবে আপনার দাঁতের স্কেলিং করানোর প্রয়োজন আছে কিনা। যদি থাকে তাহলে তারা ভালোভাবে স্কেলিং করে দেবে। আমের দাঁত সুরক্ষা রাখার জন্য এবং পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্যই মূলত দাঁত স্ক্রিন করা অত্যন্ত প্রয়োজন।

স্কেলিং করলে কি দাঁতের ক্ষতি হয়?

দাত আমাদের দৈনন্দিন জীবনে খাবার গুলো খেতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দাঁত যেমন আমাদের খাবার খেতে সাহায্য করে তারই সাথে আমাদের মুখের সৌন্দর্য এবং সুন্দর হাসির জন্যও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। দাঁতের বাইরের সাদা অংশকে বলা হয় এনামেল। দাঁতের ক্ষয় এবং দাঁতের ক্যারেজ এর অন্যতম কারণ হলো প্লাক। এ ধরনের সমস্যা গুলো ব্রাশ করার মাধ্যমে সমাধান করা যায় না। এর জন্য ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী দাঁতের স্কেলিং করানো হয়। আপনারা হয়তো অনেকেই ভাবেন দাঁতের স্কেলিং করানোর ফলে দাঁতের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হয়।

আবার অনেক জন ভাবেন স্কেলিং করার ফলে দাঁত আগের চেয়ে পাতলা হয়ে যায়। তবে ভয়ের কোন কারণ নেই কেননা স্কেলিং করলে দাঁত পাতলা হয় না বরং স্কেলিং করলে দাঁত সুন্দর এ দুর্গন্ধ মুক্ত হয়ে যায়। আবার অনেকেই আছেন যারা ভাবেন দাঁত স্কেলিং করলে দাঁত নড়ে যায়। তবে প্রকৃতপক্ষে এটা এইটা সত্য যে স্কেলিং করলে কোন ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় না। স্কেলিং করলে দাঁত আরো বেশি সুন্দর এবং জীবাণমুক্ত থাকে। সুতরাং বলা যায় দাঁতের স্কেলিং করলে কোন ধরনের ক্ষতি হয় না।

আপনারা হয়তো দাঁতের স্কেলিং খরচ কত সেই সম্পর্কে কিছুই জানেন না। তবে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে দাঁতের স্কেলিং খরচ কত তা বিস্তারিত জানাবো। দাঁতের স্কেলিং খরচ কত তা জানার জন্য আমাদের সাথেই থাকুন।

দাঁত পরিষ্কার ও স্কেলিং এর মধ্যে পার্থক্য কি

দাঁত স্কেলিং এর বৈজ্ঞানিক নাম হল বায়োফিল্ম এবং ক্যালকুলাস সুপ্রাজিনজিভাল দাঁতের পিষ্ঠ থেকে অপসারণ করে থাকে। আমাদের প্রত্যেককেই দাঁত স্কেলিং ১২ মাসে একবার হলেও করা দরকার। এবং দাঁত কে সবসময়ই পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। তবে আমরা যদি এমনি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করি তাও সম্পূর্ণ ভাবে পরিষ্কার হয়ে ওঠে না। দাঁতের উপরে তো ঠিকই পরিষ্কার হয় কিন্তু ভেতরের দিকে আয়রন অথবা দাঁতে পাথর চলতে থাকে। সে জন্য দাঁতের স্কেলিং করার জরুরী। অতএব দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম বুঝতে হবে।

আরো পড়ুনঃআক্কেল দাঁতের ব্যাথা কমানোর সহজ উপায় জানুন

এ জন্য সঠিক উপায়ে দাঁতের যত্ন নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। ডেন্টিস্ট এর পরামর্শ মতে প্রতি ছয় মাসে একবার হলেও দাঁত পরিষ্কার করার পরামর্শ নেয়া দরকার বা বলা যায় প্রতি ছয় মাসে একবার হলেও নিয়মিত চেক আপ করা দরকার। আসলে মানুষের অভিজ্ঞতার কোন শেষ নাই। তাই নতুন অভিজ্ঞতার নেয়ার জন্য এবং দাঁতের সুরক্ষার জন্য ডেন্টাল ক্লিনিকে নিয়মিত চেকআপের জন্য যাওয়া প্রয়োজন। দাঁতের সমস্যার নিম্নে কিছু লক্ষণ দেওয়া হল।

  • দাঁতের মাড়ি হতে রক্তপাত হওয়া।
  • লাল, কোমল এবং ফোলা মাড়ি দেখা দেওয়া।
  • নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ হওয়া।

কিছু নির্দিষ্ট সময়ে এবং কিছু পরিস্থিতি তে দাঁত পরিষ্কার করার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে। নিম্নে সেই
শর্ত গুলি আলোচনা করা হলো।

  • দারিদ্র মৌখিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা।
  • তামাক ব্যবহার বা ধূমপান বন্ধ করা।
  • পারিবারিক ইতিহাস তুলে ধরা।
  • হরমোন পরিবর্তন হওয়া।
  • শরীরে কম পুষ্টি উপাদান হওয়া।
  • চিকিৎসা বিদ্যা শর্ত মেনে চলা।

দাঁত পরিষ্কার বা ইসকেলিনের কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নাই। কেউ কেউ মুখের চোয়ালে অস্বস্তি অনুভব করে কিন্তু এটি বেশির ভাগ সময় একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য মুখ খোলা থাকার কারণে হয়ে থাকে। আবার কেউ কেউ সংবেদনশীলতা অনুভব করতে পারে। তবে এটিরও সমাধান কয়েক ঘন্টা বা দিনের মধ্যে হয়ে যাবে। এই ধরনের সমস্যা থেকে বাঁচার জন্য চিকিৎসকরা উন্নত মানের অথবা দাঁতের জন্য যেটা জরুরি টুথপেস্ট রয়েছে সেটা ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

দাঁত পরিষ্কার ও স্কেলিং এর মধ্যে পার্থক্য আছে তবে দাঁত পরিষ্কার করার পদ্ধতি সম্পর্কে সঠিক টা জেনে তা নিয়মিত চেষ্টা এবং ছয় মাস পর পর দাঁতের চেক আপ করা খুবই জরুরী। একজন দাঁতের ডাক্তার দুটি পদ্ধতির অনুসরণ করতে বলেন। যা ফলো করতে পারলে আমাদের দাঁতের জন্য খুব উপকৃত হবে। দাঁত পরিষ্কার ও স্কেলিং এর সুবিধা নিম্নে দেয়া হলো।

  • মাড়ির রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে
  • দাঁত ক্ষয় এবং হাড় হাড় ক্ষয় এর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে।
  • দাঁত ক্যারিস প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে।
  • দাঁতের আয়রন যুক্ত দাগ খুব সহজে দূর হয়ে যাবে।
  • মুখে সবসময়ই মধুময় হাসি থাকবে।
  • কোন দুর্গন্ধ থাকবে না।

দাঁতের স্কেলিং খরচ কত

দাঁতের স্কেলিং খরচ কত সেটার সম্পর্কে আপনাদের সঠিক টা জানানোর চেষ্টা করব। সাধারণত দাঁতের স্কেলিং এর খরচ অনেক। তবে সরকারি হাসপাতাল গুলোতে মাত্র দশ টাকায় দাঁতের চিকিৎসা সম্ভব। এটা শুনতে অবাক লাগলেও এটাই বাস্তব। কারণ সরকারি হাসপাতালের টিকিট কাটতে হয় ১০ টাকার। সে টিকিটের মাধ্যমে খুব সহজেই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে সঠিক চিকিৎসা করা হয়। অন্যদিকে প্রাইভেট ক্লিনিক বা ডেন্টাল কেয়ার গুলোতেই ডাক্তার দেখানোর ভিজিট নাই পাঁচশ থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত।

এবং স্কেলিং খরচ তো আরো বেশি। কিন্তু আপনি সরকারি হাসপাতালে ডাক্তার এর সুন্দর পরামর্শ এবং ওষুধ পেয়ে যাচ্ছি মাত্র দশ টাকায়। কিন্তু মানুষ তাও সরকারি হাসপাতালে যেতে চায় না কারণ এখানে ডিফারেন্সটা হয় পরিবেশের। বাইরে অনেক ভিড় হয়ে থাকে ডাক্তার দেখাতেও অনেক সময় ধরে দাঁড়াতে হয়। অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মত শিফটিং ব্যবস্থা চালু করে দিলে সাধারণ মানুষের জন্য অনেক সহজ ও উপকার হবে চিকিৎসা নিতে। দাঁত পরিষ্কার করা বা দাঁত স্কেলিং করা ছাড়াও দাঁতের আরো অনেক চিকিৎসা আছে।

আরো পড়ুনঃদাঁতের যন্ত্রণা কমানোর উপায় জেনে নিন

যেমন দাঁতের ক্যাপ লাগানো অথবা ইমপ্লান্ট এর মত আধুনিক চিকিৎসা এখনো সরকারি মেডিকেল গুলোতে শুরু হয়নি। বেসরকারি হাসপাতাল অথবা প্রাইভেট ক্লিনিক এ সাধারণত দাঁতের পরিস্থিতি অনুযায়ী ফিলিং ১৫০০ টাকা, রুট ক্যানেল ৪৫০০ টাকা, স্কেলিং ১০০০ থেকে ১৫০০ টাকা এবং দাঁত লাগানো আড়াই হাজার টাকা পর্যন্ত নেওয়া হয়। তার ক্যাপ লাগানোর মতো বড় চিকিৎসার জন্য ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা পর্যন্ত নেওয়া হয় এবং দাঁত ইমপ্লান্ট করতে চাইলে ৫৫ থেকে ৬০ হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ করতে হয়।

তবে একটা দিক ভেবে ভালো লাগে যে, বিদেশ এর তুলনায় আমাদের দেশের দাঁতের চিকিৎসার খরচ অনেকটাই কম। আমাদের দেশের যেখান-সেখানে দাঁতের চিকিৎসক বা ডেন্টাল কেয়ার দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু বিদেশে সেটা দেখতে পাবেন না। সে জন্য দাঁতের চিকিৎসার খরচও বেশি। আবার তাদের সব ক্ষেত্রে লাইসেন্স প্রয়োজন হলেও দাঁতের চিকিৎসার ক্ষেত্রে কোন লাইসেন্স থাকে না।

শেষ কথা ঃ দাঁত স্কেলিং কেন প্রয়োজন

আশা করি আজকের প্রশ্নের মাধ্যমে দাঁতের স্কেলিং খরচ কত ও দাঁত স্কেলিং কেন প্রয়োজন তা আলোচনা করলাম। আসলে কথায় আছে যে দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম বুঝতে হয়। না বুঝতে পারলে তাকে পরে অবশ্যই পস্তাতে হবে। সে জন্য দাঁতের নিয়মিত যত্ন ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করুন। এবং ছয় মাস পর পর ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা গ্রহণ করুন। ধন্যবাদ।


পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url