চোখের এলার্জির ড্রপের নাম - চোখ পরিষ্কার করার ড্রপ নাম

প্রিয় পাঠক আমাদের মধ্যে অনেকেরই চোখের এলার্জির সমস্যা রয়েছে। যেহেতু চোখ মানুষের অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ তাই চোখের এলার্জির ড্রপের নাম এবং চোখের এলার্জি দূর করার ঔষধ সম্পর্কে আমাদের সবার জানা থাকা উচিত। চলুন তাহলে দেরি না করে চোখের এলার্জির ড্রপের নাম- চোখের এলার্জি দূর করার ওষুধ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করি।

চোখের এলার্জির ড্রপের নাম - চোখ পরিষ্কার করার ড্রপ নাম


চোখের এলার্জি সাধারণত যে সমস্ত খাবার খেলে এলার্জি বেড়ে যায় অথবা বাহিরের ধুলাবালি বা বিভিন্ন রকম ভাইরাসের কারণে হয়ে থাকে। চোখের এলার্জি কেন হয় চোখের এলার্জির লক্ষণ এবং দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে এই আর্টিকেলটি সম্পন্ন করতে হবে।

চোখের এলার্জি কেন হয়?

আমাদের আশেপাশে অদৃশ্য অনেক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ধুলাবালি বাতাসে ভেসে বেড়ায়। এছাড়াও আমাদের ত্বকের বিভিন্ন শুষ্ক অংশ এবং গাছপালা লতা পাতা সহ বিভিন্ন উদ্ভিদের পরাগ রেণু বাতাসে ভেসে বেড়ায়। এই সকল অ্যালার্জেন থেকে চোখের এলার্জি সমস্যা দেখা দেয়। চোখের এলার্জি কে এলার্জিক কনজাংটিভাইটিস বলা হয়। আমাদের অবশ্যই বাহিরে বের হলে সানগ্লাস অথবা পাওয়ার চশমা পড়ে বের হওয়া উচিত।

চোখের এলার্জির লক্ষণ

চোখের এলার্জির অনেকগুলো লক্ষণ রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি যেসকল লক্ষণগুলো দেখা যায় সেগুলো হলোঃ
  • হঠাৎ করে প্রচন্ড চোখ চুলকানো
  • চোখ লাল চোখ ফুলে যাওয়া
  • চোখ প্রচন্ড জ্বালাপোড়া করা
  • চোখ দিয়ে পানি বের হওয়া
  • হাসি কাশি এবং নাক দিয়ে পানি পড়া

চোখের এলার্জি দূর করার উপায়

যেহেতু চোখের এলার্জির জন্য দায়ী বাহিরের ধুলাবালি, ফুলের রেণু বা ত্বকের শুষ্ক ত্বক, ঘরের ভেতরের বিভিন্ন আসবাবপত্রের উপর পড়ে থাকা ধুলাবালি। তাই এগুলো থেকে অবশ্যই সতর্ক অবস্থানে থাকতে হবে। যে সমস্ত খাবার খেলে এলার্জি বেড়ে যায় সেই সমস্ত খাবার থেকে দূরে থাকতে হবে। ধুলাবালি এড়িয়ে চলতে হবে। বাহিরে বের হলে অবশ্যই চোখে সানগ্লাস ব্যবহার করতে হবে। যে সমস্ত প্রসাধনী ব্যবহার করলে এলার্জি হয় তা পরিহার করতে হবে। হাসি কাশি দেওয়ার পর মুখে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

যদি বুঝতে পারেন চোখের এলার্জি সমস্যা দেখা দিয়েছে তাহলে চোখের এলার্জির ড্রপের নাম মনে রাখুন এবং সাথে সাথে এলার্জির ওষুধ সেবন করতে পারেন এবং চোখের এলার্জির ড্রপ ব্যবহার করতে পারেন। যদি আপনার গরুর মাংস ও চিংড়ি মাছ ডিম জাতীয় খাবার খেলে এলার্জি হয় তাহলে এগুলো খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। চোখে এলার্জি দেখা দিলে শুধু শুধু হাত দিয়ে চোখ ঘষাঘষি করা থেকে বিরত থাকুন। সবসময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন পরিবেশ বজায় রাখুন ধুলাবালি থেকে দূরে থাকুন।

চোখ পরিষ্কার করার জন্য কোন ড্রপ ব্যবহার করা হয়

প্রিয় পাঠক এভাবে আমরা আলোচনা করব চোখ পরিষ্কার করার জন্য কোন ড্রপ ব্যবহার করা হয়। আমরা অনেকেই জানিনা চোখ পরিষ্কার করার জন্য কোন ড্রপ ব্যবহার করা ভালো। তাই আজকে আপনাদের জানাবো চোখ পরিষ্কার করার জন্য কোন রোগ ব্যবহার করা চোখের জন্য ভাল। চোখ পরিষ্কার করার জন্য সবচেয়ে ভালো ড্রপ হচ্ছে ক্লিন আই ড্রপ।

চোখের এলার্জির ড্রপ এর নাম

চোখের এলার্জির ড্রপের নাম গুলো নিচে উল্লেখ করা হলো। অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এগুলো ব্যবহার করবেন। কারণ কোন ওষুধই অতিরিক্ত মাত্রায় অথবা মাত্রার চেয়ে কম ব্যবহার করা উচিত নয়। যেহেতু চোখ মানুষের অনেক গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ তাই অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ গুলো ব্যবহার করবেন নিচে এখানে চোখের এলার্জির ড্রপের নাম গুলো হলো দেওয়া হলোঃ
  • Dexagent T
  • Lovicin
  • Crolom (Cromolyn Ophthalmic)
  • Alcarex Eye Drop
  • Engatt 0.5% Eye Drops
  • Zonafresh Eye Drop
[বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ এখানে চোখের এলার্জির ড্রপের নাম গুলো দেওয়া আছে এগুলো অবশ্যই রেজিস্টার্ড ডাক্তার এর নিকট হতে নির্দিষ্ট পরিমাণ জেনে তারপর ব্যবহার করবেন]

চোখের এলার্জির ট্যাবলেট

প্রিয় পাঠক নিশ্চয়ই আপনি জানতে চাচ্ছেন চোখের এলার্জির ট্যাবলেট সম্পর্কে। তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। এই পর্বে আমরা চোখের এলার্জির ট্যাবলেট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।
চোখের এলার্জির ড্রপের নাম অনেকে আমরা জানি কিন্তু চোখের এলার্জি ট্যাবলেট গুলোর নাম অনেকেই জানিনা। যার ফলে আমরা শুধুমাত্র চোখের ড্রপ ব্যবহার করে থাকি। তাই আজকে আমরা জানবো চোখের এলার্জির ট্যাবলেট গুলো কি কি।
  • লাইফ্লক্স ট্যাবলেট (Lyflox O Tablet)
  • ডেসলােরাটাডিন (Desloratadine)
  • রুপাডিন (Rupatadine)
  • এবাটিন (Ebatin)
  • এলাট্রল (Alatrol)
উপরে বর্ণিত যে ট্যাবলেট গুলো দেওয়া আছে এই ট্যাবলেট গুলো খেলে আপনি চোখের এলার্জি থেকে মুক্তি পাবেন।

চোখের এলার্জির হোমিও চিকিৎসা

চোখের এলার্জি দেখা দিলে প্রচন্ড চোখ জ্বালাপোড়া হয়ে থাকে। আর এই জ্বালা পোড়ার কমানোর জন্য আমরা চোখের এলার্জির ড্রপের নাম এবং এর ব্যবহারগুলো উপরে উল্লেখ করেছি। অনেকে চোখের এলার্জির হোমিও চিকিৎসা জানার জন্য অনুরোধ করেছেন তাই চোখের এলার্জির ড্রপের নাম এর পাশাপাশি হোমিও চিকিৎসার যেসকল ওষুধ ব্যবহার করা হয় চোখের এলার্জি জন্য সেগুলো বিস্তারিত নিচে দেওয়া হলঃ

অ্যাপিস মেলঃ চোখের এলার্জির তীব্র জ্বালাপোড়া থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন এপিসমেল নামক হোমিওপ্যাথিক ঔষধ। চোখের চারপাশে ফোলা ভাব সহ চোখের থেকে বের হওয়া বিভিন্ন পানীয় বন্ধ করতে সাহায্য করে।

ইউফ্র্যাসিয়াঃ হঠাৎ করে চোখ প্রচন্ড পরিমাণে জ্বালাপোড়া করা এবং চোখ থেকে অঝোরে পানি বের হওয়া পেছনের কারণ হলো এসিডিক ঝাঁজালো কিছু চোখ দিয়ে নির্গমন হয়। এই ঝাঁঝালো ভাব ভাব দূর করার জন্য এই ওষুধ ব্যবহার করা হয়।

আর্জেন্টাম নিট্রিকামঃ চোখ দিয়ে প্রচন্ড পরিমাণ পেচড়ি বা পুঁজ এর মত কিছু বের হতে থাকলে এই ঔষধটি ব্যবহার করা হয়। ওষুধ ব্যবহার করলে রোগীর কিছু তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া দেখা যেতে পারে যেমন তার মনে হতে পারে চোখের ভেতর সব কিছু ভেঙে খণ্ডে খণ্ডে বিভক্ত হয়ে যাচ্ছে এতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই।

রুটাঃ অনেক সময় মনে হয় চোখে কিছু পড়েছে কিন্তু আসলে খুঁজে তেমন কিছু পাওয়া যায় না যেমন প্রচন্ড পরিমাণ চোখের ভেতরে খোঁচানো অনুভব করা এই রোগ দূর করতে হোমিওপ্যাথিক ওষুধ হিসেবে এটি ব্যবহার করা হয়।

পালসাটিলাঃ হঠাৎ করে চোখের ভেতর থেকে হলুদ রঙের পানি বের হওয়া প্রচন্ড পরিমাণে চোখ চুলকানো এবং চোখের পাতায় দানা দানা কোন কিছু অনুভব হলে সেই রোগ দূর করতে কি ব্যবহার করা হয়।

চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা

মানুষের অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ হল চোখ। চোখের অনেকগুলো সমস্যা রয়েছে বিশেষ করে সেই সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা সাধারণত চোখের ড্রপ ব্যবহার করে থাকি। চোখের এলার্জির ড্রপের নাম গুলো উপরে উল্লেখ করা হয়েছে আশাকরি আপনি সেগুলো নোট করে নিয়েছেন। এখানে আমরা আলোচনা করব চোখের এলার্জির ড্রপের  পরিবর্তে কিভাবে আমরা ঘরোয়া উপায়ে চোখের এলার্জি চিকিৎসা করতে পারি।

  • সাধারণত যে সমস্ত স্থানে এলার্জির কারণে জ্বালাপোড়া বা অন্যান্য সমস্যা দেখা দেয় সেখানে ঠান্ডা পানির ভাপ অনেকটা আরামদায়ক উপাদান হিসাবে কাজ করে। তাই আমরা চাইলেই ভালো একটি কাপড় পানিতে ভিজিয়ে আমাদের চোখের ওপর ভিজিয়ে রেখে দিতে পারে এতে করে অনেকটা কষ্ট উপশম হবে।
  • চোখের এলার্জি সমস্যার কারণে আমরা শসা গোল গোল করে কেটে ফেসিয়াল করার মত করে চোখে দিয়ে রাখতে পারি এতে করে চোখের জ্বালাপোড়া অনেকাংশে কমে যাবে।
  • চোখের এলার্জির থেকে রেহাই পেতে আমরা গোলাপ জলের ব্যবহার করতে পারি। গোলাপ জল চোখের জ্বালাপোড়া থেকে মুক্তি দেয় সাথে সাথে চোখ পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে।
  • চোখের প্রাকৃতিক ঔষধ হিসেবে কাজ করে গ্রীন টি। চোখের ভেতরে ব্যথা কমাতে দারুণ উপকারী একটি বস্তু হল গ্রিন টি।

লেখক এর মন্তব্য

প্রিয় পাঠক আমরা চেষ্টা করেছি চোখের এলার্জির ড্রপের নাম এবং চোখের এলার্জি দূর করার ওষুধ গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে আশা করি এগুলো আপনাদের অনেক কাজে লাগবে। আপনি যদি এই সকল তথ্য জেনে উপকৃত হন তাহলে অবশ্যই আপনার পরিবার বন্ধুবান্ধব এবং আত্মীয়-স্বজনদের মাঝে শেয়ার করবেন এতে করে তারাও এই বিষয়গুলো বিস্তারিত জানতে পারবে। এবং নিয়মিত স্বাস্থ্য-চিকিৎসা, নতুন নতুন প্রযুক্তি, বিভিন্ন জ্ঞান-বিজ্ঞানের তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করতে ভুলবেন না।


পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url