সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা দেখে নিন

অনেকে আছেন যারা ছোট পরিসরে ক্ষুদ্র ব্যবসা শুরু করতে চান,যার জন্য আপনারা ক্ষুদ্র ব্যবসা সম্পর্কে জানতে চান।সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা নিয়ে আজকের আর্টিকেলটি লেখা হয়েছে। তাই লাভজনক সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা সম্পর্কে জানতে আজকের আর্টিকেলটি বিস্তারিত পড়ুন।

আজকের আর্টিকেলে আমরা এমন সেরা সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা সম্পর্কে আপনাদের জানাবো,যার জন্য খুব বেশি মূলধনের প্রয়োজন হয় না। স্বল্প মূলধনে ক্ষুদ্র পরিসরে কিভাবে লাভজনক ব্যবসা করা যায় সে সম্পর্কে আজকে আমরা আপনাদের বিস্তারিত জানাবো। তাই সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা সম্পর্কে জানতে আর্টিকেলটি বিস্তারিত পড়ুন।

ভূমিকা সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা

যে কোন ব্যবসায় শুরু করার মূল চাবিকাঠি হচ্ছে সততা। যে কোন ব্যবসায় শুরু করে সৎ ভাবে তা পরিচালনা করলে সেখান থেকে লাভবান হওয়া সম্ভব।

বর্তমানে অনেকে আছেন যারা নতুন ব্যবসা শুরু করতে চান এবং আত্মনির্ভরশীল হতে চান।এখন এমন অনেক ব্যবসা আছে যেগুলো ছোট পরিসরে শুরু করা যায়। তাই স্বল্প মূলধনে লাভজনক সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে আজকের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

ফল-সবজি দোকান

সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা এর মধ্যে ফল সবজির দোকান একটি লাভজনক ব্যবসা।ছোট ব্যবসা হিসেবে ফল সবজি দোকান দেওয়া একটি লাভজনক ব্যবসা হতে পারে। স্বল্প পুঁজিতে এই দোকান দেওয়া সম্ভব এবং এই ব্যবসা পরিচালনা করতে বেশি দক্ষতারও প্রয়োজন হয় না।

ব্যবসার শুরুতে প্রাথমিকভাবে ২০ থেকে ৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করলেই হয়। তবে আপনি যদি বড় পরিসরে ব্যবসাটি শুরু করতে চান তাহলে বেশি পুঁজি বিনিয়োগ করতে হবে।

শহরের ব্যস্ত আবাসিক এলাকায় ফল সবজির দোকান শুরু করা যেতে পারে, যেখানে এই ফল এবং সবজির চাহিদা রয়েছে। সাধারণ মানুষের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী ফল এবং সবজি দোকানে মজুদ রাখতে হবে।যেহেতু ফল সবজির দোকান পরিচালনা করা সহজ তাই খুব সহজেই যে কেউ এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।


এছাড়াও আপনি বর্তমানে অনলাইনে সবজি বিক্রির মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।যেমন অনলাইন ভিত্তিক নিজস্ব ওয়েবসাইট তৈরি করে, ফেসবুকে পেজ খুলে আপনি সবজি বিক্রি করতে পারেন।

মিষ্টি দোকান

মিষ্টি যেকোনো উৎসব বা অনুষ্ঠানেকে পরিপূর্ণতা দেয়। মিষ্টি ছাড়া আমাদের কোন অনুষ্ঠানে সম্পন্ন হয় না। সেটি হতে পারে কোন ধর্মীয় অনুষ্ঠান বা বিয়ে বাড়ি আমরা মিষ্টি রাখতে ভুলিনা। যেকোনো শুভ কাজ আমরা মিষ্টি দিয়ে শুরু করি আবার মিষ্টি দিয়ে শেষ করি।তাই মিষ্টি দোকান দেওয়া একটি লাভজনক ব্যবসায হতে পারে।


মিষ্টির দোকান দেওয়ার জন্য প্রথমে সঠিক জায়গা ঠিক করতে হবে, যেখানে প্রতিনিয়ত লোকের সমাগম ঘটে। তারপর মিষ্টি তৈরির জন্য কাঁচামাল এবং স্থায়ী উপকরণ ও অভিজ্ঞ কারিগর ঠিক করতে হবে। মিষ্টির স্বাদ ও গুণগত মান ঠিক রেখে ভালো প্যাকেজিং ও সঠিক মূল্য নির্ধারণ করার মাধ্যমে সুন্দরভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে হবে। তাহলে স্বল্প পুঁজিতে মিষ্টির দোকান থেকে অনেক বেশি লাভবান হওয়া সম্ভব।

কার সার্ভিস সেন্টার

একজন গাড়ির মালিকের, তার গাড়ির জন্য একটি নির্ভরযোগ্য ও বিশ্বস্ত কার সার্ভিস সেন্টার প্রয়োজন। যেখানে তিনি তার গাড়ির বিভিন্ন ধরনের সার্ভিসিং করাতে পারেন।

সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা এর মধ্যে কার সার্ভিস সেন্টার একটি লাভজনক ব্যবসা। আপনি যদি ছোটপরিসরে স্বল্প পুঁজিতে কোন ব্যবসা শুরু করতে চান তাহলে কার সার্ভিস সেন্টার একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠান হতে পারে।

পানির সরবরাহ সেবা

পরিষ্কার ও বিশুদ্ধ পানির সরবরাহ সেবা দেওয়ার মাধ্যমে আপনি লাভবান হতে পারেন। এ ধরনের সেবা দেওয়ার মাধ্যমে একদিকে যেমন জনগণের সুবিধা হচ্ছে অন্যদিকে আপনি এর মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। 

ইলেক্ট্রিক সার্ভিস প্রদানকারী

আপনি যদি ইলেকট্রিক্যাল বিষয়ে একটু অভিজ্ঞ হয়ে থাকেন তাহলে ইলেকট্রিক সার্ভিস প্রদানকারী হিসাবে ক্ষুদ্র পরিসরে, একটি ব্যবসায়ী শুরু করতে পারবেন। যেখানে লোকের সমাগম বেশি এমন কোন বড়বাজার বা এরকম জায়গায় উপযুক্ত পরিবেশে ইলেকট্রিক সার্ভিস এর দোকান দেওয়া যেতে পারে।এবং আপনি ইলেকট্রিক সার্ভিস প্রদানকারী হিসেবে বিভিন্ন ধরনের হোম সার্ভিস দিতে পারেন।

পাইপ ফিটিং সেবা

আপনার যদি পাইপ ফিটিং সম্পর্কে অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনি পাইপ ফিটিং সেবা দেওয়ার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে পাইপ ফিটিং এ অভিজ্ঞ কোন কর্মীর মাধ্যমেও আপনার ব্যবসাটি লাভজনকভাবে পরিচালনা করতে পারবেন।

স্টেশনারি দোকান

সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা এর মধ্যে স্টেশনারি দোকান অন্যতম লাভজনক ব্যবসা। এই ব্যবসা শুরু করতে বেশি মূলধনের প্রয়োজন হয় না। স্বল্প মূলধনে ক্ষুদ্র পরিসরে, চাহিদা অনুযায়ী সঠিক জায়গায় একটি স্টেশনারি দোকান দেওয়ার মাধ্যমে লাভবান হওয়া সম্ভব। 

স্টেশনারি দোকান পরিচালনা করার জন্য অনেক বেশি দক্ষতার প্রয়োজন হয় না যার ফলে খুব সহজেই এই ব্যবসা থেকে লাভ করা সম্ভব।গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী স্টেশনারি দোকানে বিভিন্ন ধরনের স্টেশনারি পণ্য মজুদ রাখতে হয়।

কম্পিউটার এবং অফিস সরঞ্জাম দোকান

সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা এর মধ্যে কম্পিউটার এবং অফিস সরঞ্জাম এর দোকান লাভজনক ব্যবসা হতে পারে। কোন বড় বাজার বা মার্কেটে যেখানে, লোকজনের সমাগম বেশি এমন জায়গায় কম্পিউটার এবং অফিস সরঞ্জাম এর দোকান দেওয়া যেতে পারে। এখানে গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী সঠিক মাল মজুদ রাখার মাধ্যমে লাভজনকভাবে ব্যবসাটি পরিচালনা করা সম্ভব।

টিউশন সেন্টার

প্রত্যেকটি মানুষের জীবনে শিক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস। প্রত্যেকটি বাবা-মাই চান তাদের সন্তানরা যেন সঠিকভাবে শিক্ষা লাভ করতে পারে।

বর্তমানে আপনি গ্রামে বা শহরে বিভিন্ন টিউশন সেন্টার গড়ে তোলার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।তার জন্য সবার প্রথমে আপনাকে বিষয় নির্বাচন করতে হবে এবং ঐ বিষয়ে ভালোভাবে শিক্ষিত হতে হবে।

আপনাকে ভালোভাবে পড়ানোর ক্ষমতা রাখতে হবে,সঠিক জায়গা নির্বাচন করতে হবে এবং সঠিক বেতন নির্বাচন করতে হবে। তাহলে আপনি টিউশন সেন্টার গড়ে তোলার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

মোবাইল অ্যাকসেসরিজ দোকান

বর্তমানে মোবাইলের চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে মোবাইল এক্সেসরিজ এর চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে সাধারণ মানুষের বিভিন্ন ধরনের মোবাইল এক্সেসরিজ যেমন: স্ক্রিন প্রটেক্টর,ব্যাক কভার,ব্যাটারি,চার্জার,হেডফোন, ইউএসবি ক্যাবল, পাওয়ার ব্যাংক, মেমোরি কার্ড ইত্যাদির চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে।


তাই মোবাইল অ্যাকসেসরিজ দোকান দেওয়ার মাধ্যমে লাভবান হওয়া সম্ভব। মোবাইল এক্সেসরিজ এর দোকান দেওয়ার জন্য প্রথমে সঠিক জায়গা নির্বাচন করতে হবে। প্রয়োজন হলে একজন কর্মী নিয়োগ করতে হবে।তারপর গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের মোবাইল অ্যাকসেসরিজ দোকানে মজুদ রাখতে হবে এবং সেগুলোর সঠিক মূল্য নির্ধারণ করতে হবে।

মোবাইল অ্যাকসেসরিজ এর দোকান দেওয়ার জন্য খুব বেশি অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হয় না। যার ফলে যে কেউ মোবাইল অ্যাকসেসরিজ এর দোকান দেওয়ার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারে।

শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা সেরা ১০টি ক্ষুদ্র ব্যবসার তালিকা নিয়ে আলোচনা করেছি ও বিভিন্ন ধরনের তথ্য প্রদান করার চেষ্টা করেছি। যেখানে আমরা ফল ও সবজির দোকান,মিষ্টি-দোকান,কার সার্ভিস সেন্টার,পানি সরবরাহ সেবা,ইলেকট্রিক সার্ভিস প্রদানকারী,পাইপ ফিটিং সেবা,স্টেশনারি দোকান, কম্পিউটার এবং অফিস সরঞ্জাম,দোকান টিউশন সেন্টার,মোবাইল এক্সেসরিজ দোকান সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের তথ্য এবং বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করছি আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের উপকারে আসবে।
পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url