চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা - চোখের এলার্জির ওষুধ

আসসালামু আলাইকুম, প্রিয় পাঠক আজকের পোষ্টের মাধ্যমে চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা ও চোখের এলার্জির ওষুধ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। যাদের মধ্যে চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা সম্পর্কে ধারণা নেই তাদেরকে সম্পূর্ণ ধারণা দেয়ার চেষ্টা করব।

চলুন দেরি না করে জেনে নেই চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা ও চোখ এর এলার্জির ওষুধ সম্পর্কে বিস্তারিত। চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসার সম্পর্কে সবারই জানা প্রয়োজন। 

চোখের এলার্জি দূর করার উপায়

আমাদের শরীরের সব অঙ্গের গুরুত্ব অপরিসীম। প্রত্যেকটি অঙ্গই আমাদের জন্য অনেক জরুরী। সব অঙ্গের মধ্যে একটি যদি না থাকে তাহলে স্বাভাবিক ভাবে জীবন যাপন করা যায় না। তবে মানবদেহের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হচ্ছে চোখ। বর্তমান পরিস্থিতিতে সুন্দর জীবন যাপনের জন্য আমরা অনেক পরিশ্রম করে থাকি। নিজের খেয়াল রাখার মত সময়টুকু বের করতে পারি না। এই ব্যস্ততার জীবন যাপনের জন্য নিজের চোখে ঠিকমতো যত্ন নিতে পারি না। সে জন্য চোখের বিভিন্ন সমস্যা হয়ে থাকে।

আরো পড়ুনঃচোখের জ্যোতি বৃদ্ধি করার উপায়

চোখের এলার্জির ড্রপ

বর্তমানে কিছু মানুষ মস্তিষ্কে ব্যাধিগুলির মতো অন্যান্য অবস্থার ক্ষতিগ্রস্ত হলে ক্ষতিকারক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলির মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে, ঘুঘুগুলি , হৃদরোগ, কিডনি সমস্যা, মাইস্টেনিয়া গ্যারিস, লিভার ডিজিজ , মৃগীরোগ, একটি অ্যান্টিবায়োটিক এলার্জি ইত্যাদি সমস্যা এগুলো হয়ে থাকে এবং গর্ভবতী মহিলাদের জন্য, মহিলাদের বুকের দুধ খাওয়ানো এবং ১৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের এই অ্যান্টিবায়োটিক এড়াতে পরামর্শ দেওয়া হয় কারণ এটি ক্ষতিকর পরিণতি হয়ে থাকে।

চোখের এলার্জি দূর করার ঔষধ

চোখের এলার্জি সমস্যা এটি একটি অনেক বড় সমস্যা। ঠিক সময়ে চিকিৎসা না করা হলে চোখের কর্নিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। সেজন্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ খেতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যতীত অন্য কোন ঔষধ সেবন করা চোখের জন্য ঠিক হবে না। উন্নত মানের চিকিৎসার চেয়ে প্রতিরোধই হচ্ছে অনেক বেশি কার্যকর। চোখের এলার্জি দূর করার ঘরোয়া উপায় এ জন্য- এলার্জি যুক্ত এবং আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করতে হবে।

যেমন  আপনার যদি বাড়ীতে কোন পোষা প্রাণী থাকে তাহলে তার থেকে সতর্ক থাকতে হবে। সবচেয়ে ভালো হয় চোখে সানগ্লাস বা রোদচশমা ব্যবহার করলে। চোখের এলার্জি দূর করার ঔষধ হিসেবে নিচের ঘরোয়া চিকিৎসা অনুসরণ করার চেষ্টা করতে পারেন।

  • তিন চার ফোটা গোলাপ জল এনার্জি আক্রান্ত চোখে দিয়ে কিছুক্ষণের জন্য চোখ বন্ধ করে রাখতে হবে যেন চোখে থাকা এনার্জি আর ইনফেকশন সরিয়ে তুলতে পারে।
  • তিন থেকে চার চামচ লবণ এক গ্লাস পানিতে ২৫ মিনিট ফুটিয়ে নিতে হবে। তারপর সেটিকে ঠান্ডা করে কয়েক টুকরা পুরস্কার সাহায্যে আক্রান্ত চোখের কোনা ভালো ভাবে মুছতে হবে।

চোখের এলার্জির হোমিও চিকিৎসা

চোখের এলার্জি বা এলার্জিক কঞ্জাঙ্কটিভাইটিস হল এক ধরনের চোখের ব্যাধি যা হলে চোখের কঞ্জাঙ্কটিভাতে প্রদাহ হয়। চোখের এলার্জি মূলত ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত কঞ্জাঙ্কটিভাইটিস এর থেকে কিছুটা আলাদা হয়ে থাকে। চোখের এলার্জি সাধারণত গরমকালে হয়। হোমিও প্যাথি এর কিছু চিকিৎসা রয়েছে। এই এলার্জির যে যে লক্ষণ দেখা দেয় তা নিম্নে আলোচনা করা হলো।
  • তীব্র শ্লেষ্মা নেত্রপ্রদাহ।
  • চোখে ঘন ঘন জল আসে এবং চোখ মিটমিট করতে থাকে।
  • চোখে অনেক জ্বালা পোড়া করে যাতে চোখের পাতার প্রান্তে ক্ষত হতে শুরু হয়।
  • কর্নিয়ার অস্বচ্ছতার সাথে জ্বালা পোড়া এবং ঘন স্রাব নিঃস্বরণ হতে থাকে।
  • কর্নিয়ায় ফুস্কুড়ি বা ইস্ফটক হতে থাকে।
  • বাত জনিত কারণে চোখের আইরিস প্রদাহ সহ আংশিক ভাবে চোখের পাতা প্যারালাইসিস এর ক্ষেত্রে এটি সবচেয়ে ভাল একটি ঔষধ হিসেবে কাজ করে।
  • প্রায় সবসময়ই চোখ থেকে সব সময় পানি পড়তেই থাকে।
  • চোখের পাতা ফোলা সহ জ্বালা পোড়া থাকে যা খোলা বাতাসে ভাল অনুভব হয়ে থাকে।
  • আমাদের চোখের ভালোর জন্য সন্ধ্যায়, গৃহমধ্যে , আলো এবং উষ্ণতায় বৃদ্ধি।
  • মুক্ত বাতাস , কফি পানে, অন্ধকারে হ্রাস পেতে থাকে।
  • নেত্র প্রদাহ সঙ্গে যুক্ত এলার্জিক রাইনাই-টিস এর ক্ষেত্রে চোখ ও নাক দিয়ে অনবরত পানি ঝরে পড়াকে এলিয়াম সেপার সঙ্গে তুলনা করা হয়।

এলার্জির হোমিও ঔষধের নাম

রুটা
রুটা তীব্র ও যন্ত্রণাদায়ক এলার্জি গুলোর চিকিৎসা করে থাকে। চোখের চারপাশ ফুলে যায়, চোখের পাতাও ফুলে থাকে। চোখ থেকে সব সময় পানি বেরিয়ে আসে।

ইউফ্রেসিয়া
চোখ থেকে অনেক সময় এসিডিক কিছু বা ঝামেলা নির্গত হয় যার ফলে চোখ জ্বালাপোড়া হতে থাকে এবং চোখ থেকে ক্রমাগত পানি বের হয়ে থাকে। এরকম সমস্যা দেখা গেলে ইউফ্রেসিয়া নামক হোমিও প্যাথি ওষুধটি ব্যবহার করতে হয়।

আর্জেন্টাম নেট্রিকাম
চোখ দিয়ে অনেক বেশি পুজ বের হলে আর্জেন্টাম নেট্রিকাম হোমিওপ্যাথি ওষুধটি ব্যবহার করা হয়। কি সমস্যা গুলোর ক্ষেত্রে রোগীর ফটো ফোবিয়া হতে থাকে। চোখের ভেতর ছোট ছোট টুকরো হয়ে ভেঙ্গে যাচ্ছে বলে মনে হয়। এতে কঞ্জাঙ্কটিভা ক্রমশরস্ফীত হয়ে থাকে।

পালসাটিলা
যখন চোখের মধ্য দিয়ে একটা হলুদ কালার এর মত পাতলা শ্রাব বের হয়ে থাকে, চোখে অনেক জ্বালা পোড়া করে, চুলকায়, চোখের পাতা গুলো দেখে মনে হয় দানা বেঁধে আছে তখন পালসাটিলা নামে হোমিও প্যাথি ঔষধটি ডাক্তারের পরামর্শ দেন ব্যবহার করার।

চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা

চোখের এলার্জির সমস্যার কারণে মানুষ বেশিভাগ হোমিও প্যাথি ওষুধ ব্যবহার করে বা সেবন করে থাকে। তবে হোমিও প্যাথি ওষুধ ছাড়াও প্রাকৃতিক ভাবে কিছু ঘরোয়া ঔষধ ব্যবহার করা যায়। চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা এর পদ্ধতি নিম্নে দেওয়া হলো।

আরো পড়ুনঃবাম চোখ লাফালে কি হয় বিস্তারিত জেনে নিন

ঠান্ডা পানির ব্যবহার
এলার্জি প্রভাহিত জায়গাগুলোতে ঠান্ডা পানির প্রভাব দিলে অনেকটাই আরাম পাওয়া যায়। ঠান্ডা পানি তে পরিষ্কার কাপড় ভিজিয়ে ওই এলার্জি সমৃদ্ধ অঞ্চলটিতে রাখা যেতে পারে অথবা ক্যামোটিল টী ব্যাগ দিয়েও ঠান্ডা ভাপ হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

শসা এর ব্যবহার
শসা আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী। এ চোখের সমস্যার জন্য শসার ব্যবহার করা যেতে পারে। শসা গোল গোল করে চোখের উপরে দিতে হবে। শসা চোখে ফোলা ভাব, চুলকানি ইত্যাদি কমে যাবে।

গোলাপ জল এর ব্যবহার
গোলাপ জল চোখের এলার্জি নিরাময়ের জন্য খুবই উপকারী এবং এটি একটি প্রাকৃতিক উপাদান। যদি চোখের জ্বালা পোড়াতে প্রশমিত করে, ঠান্ডা করে ও চোখে পরিষ্কার রাখে। গোলাপ জল চোখের জল হিসেবেও ব্যবহার করা যায়।

গ্রিন টি ব্যাগ এর ব্যবহার
গ্রিন টি ব্যাগ এলার্জির জন্য সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি একটি ওষুধ। যদি চোখের প্রদাহ কমাতে ব্যবহার করা হয়। প্রকৃতিতে এন্টি প্রবাহ জনক ঔষধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

চোখের পাতায় এলার্জি

চোখের অযত্নের কারণে চোখের পাতায় খুশকি হয়ে থাকে সেটাই ধীরে ধীরে যখন সেটিতে ইনফেকশন হয়ে যায় তখন সেটাকে বলি আমরা চোখের এলার্জি বা চোখের পাতায় এলার্জি। আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন তারা চোখের পাতায় এলার্জি জনিত সমস্যা নিয়ে ভুগছেন। চোখের পাতায় এলার্জির প্রধান ও মেইন লক্ষণ গুলো হলো চোখ চুলকানো, চোখে জ্বালাপোড়া করা, চোখ থেকে অনবরত পানি পড়া ও চোখের পাতা ফুলে যাওয়া। এ সমস্যা গুলো যদি সাথে সাথেই সমাধান করা হয় তাহলে আমাদের জন্য খুবই ভালো।

তবে এই সমস্যাগুলো যদি দীর্ঘায়িত হয়ে যায় তাহলে সেটি চরম আকার ধারণ করে বসে। মূলত মানুষের শরীরের ইউনিয়ন সিস্টেমে কোন সমস্যা দেখা দিলেই এলার্জিতে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটে থাকে। সে জন্য যত দ্রুত এই ধরনের সমস্যা দেখা দিলে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে এটির সঠিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করা। এবং চিকিৎসকের পরামর্শ অনুসারে এলার্জি সংক্রান্ত সমস্যা ভালো না হওয়া পর্যন্ত ওষুধ সেবন করা।

চোখ চুলকানোর কারণ কি

চোখ চুলকানো অসহ্য জনক ও বিরক্ত কর একটি সমস্যা। এ জন্য চোখের পাতা, কর্নিয়া এবং কনজাংকটিভা ইত্যাদি পরীক্ষা করে চোখ চুলকানোর কারণ নির্ণয় করতে হবে। একটি ট্রিগার অথবা এলার্জিনের প্রতিক্রিয়ার কারণে শরীরে হিষ্টামিন নামে এক ধরনের রাসায়নিক নিঃসৃত হয় অনেক বেশি পরিমাণে। এর ফলে চোখের রক্ত বাহির নালী প্রসারিত হতে থাকে। এই কারণেই চোখ চুলকায় ও জ্বালা পোড়া, চোখ পানিতে ভরে যায় এবং কখনো কখনো লাল হয়ে যায়। চোখ চুলকানোর কিছু লক্ষণ দেখা যায় তা নিম্ন আলোচনা করা হলো।
  • চোখের পৃষ্ঠে ও পৃষ্ঠতলের ঝিল্লিতে প্রদাহ।
  • প্রতিনিয়ত সর্দি, গলা ধরে যাওয়া এবং হাঁচি হয়।
  • চোখের পাতা ফুলে যায়।
  • ক্রমাগত চোখ থেকে পানি গড়িয়ে গড়িয়ে পড়ে।
  • চোখ জ্বালাপোড়া করা।
  • চোখ লাল হয়ে পরা।

চোখের এলার্জি ঔষধ এর নাম

যথাযথ সময়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে নইলে করডিয়ার ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। আর চিকিৎসকের পরামর্শর বাইরে কোন ওষুধ সেবন করা বা চোখের কোন ড্রপ ব্যবহার করা উচিত নয়। চোখের এলার্জির সমস্যা দূর করার জন্য নিম্নে কিছু ঔষধের নাম দেয়া হলো।

  • রূটা
  • এপিস মেল
  • ইউফ্রেসিয়া
  • আর্জেন্টাম নেট্রিকাম
  • স্পিজেলিয়া
  • এমব্রসিয়া
  • ইউফ্রাশীয়া

ঘরোয়া ওষুধের নাম

আরো পড়ুনঃ চোখের ঝাপসা দূর করার উপায় জেনে নিন

  • ঠান্ডা জলের ভাব
  • শসা
  • গোলাপ জল
  • গ্রিন টি

শেষ কথাঃ চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা

আশা করি আজকের পোষ্টের মাধ্যমে চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা ও চোখের এলার্জির ঔষধের সম্পর্কে যা আলোচনা করলাম তা অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চোখের এলার্জির সমস্যা দূর করতে হবে এবং এর সাথে সাথে চোখের এলার্জির ঘরোয়া চিকিৎসা এর সাহায্যেও নিতে হবে। আমাদের পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে সবার মাঝে বেশি বেশি শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন। ধন্যবাদ।


পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url